আমার ব্যক্তিগত ভিডিও লিক করার অধিকার কারো নেই: পরীমনি

দীর্ঘ ২৭ দিন কারাভোগের পর বুধবার সকাল ৯টার দিকে কারাগার থেকে মুক্ত হন চিত্রনায়িকা পরীমনি। তিনি এখন রয়েছেন বনানীর ভাড়া বাসায়ই। এখনো আনুষ্ঠানিকভাবে মিডিয়ার সঙ্গে কথা বলেননি তিনি। বিশেষ করে রিমান্ডে তার দেওয়া তথ্য প্রকাশ হওয়ায় বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পরেছেন নায়িকা।

রিমান্ডের অভিজ্ঞতা নিয়ে ঢালিউড নায়িকা বলেন, সেভাবে হয়রানি করেনি তারা আমাকে। কি হয়েছে সবই আমি বলব। ফোন, গাড়ি সব সিআইডিতেই আছে। যেসব ভিডিও বাইরে এসেছে সেগুলো ওই ফোনেই ছিল।

তিনি বলেন, আমার ব্যক্তিগত ভিডিও লিক করার রাইটস কারো নেই। তাও আমার ফোন থেকে। আমার বাসার সিসিটিভি ফুটেজও নিয়ে যায়। অনেক তো হলো। সবকিছুই তো একটা জায়গায় শান্ত হওয়া উচিত। আমার থাকার জায়গাটা পর্যন্ত ছাড়তে না। আমি টায়ার্ড হয়ে যাই মাঝে মাঝে। কতক্ষণ পারা যায় এভাবে?

আদালতে চিৎকার করে প্রতিবাদ জানানোর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, চোখের সামনে আমাকে ফাঁসিয়ে দিয়েছে, আমি বলব না? আরে আমাকে যখন এখান (বাসা) থেকে নেয় তখন আমি জানি নাকি যে, আমাকে গ্রেফতারের জন্য নেয়। কত নাটক করে আমাকে এখান থেকে নিল। বলল, জাস্ট অফিসে যাবেন, কথা বলবেন, চলে আসবেন। ওমা, পরদিন দেখি পরীমনি গ্রেফতার। আমি বুঝলাম না কিসের জন্য। এগুলো অনেক কথা। সব বলব আমি।

উল্লেখ্য, গত ৪ আগস্ট পরীমনিকে তার বাসা থেকে আটক করে র‍্যাব। এরপর মাদক মামলায় তাকে কয়েক দফায় রিমান্ডে নেয়া হয় এবং শেষ পর্যন্ত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন আদালত। অবশেষে মঙ্গলবার জামিন পেয়ে এরপরদিন মুক্ত হলেন পরীমনি।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*