সামান্য কেটে গেলেই ব্যান্ডেজ? ডেকে আনছেন ভয়াবহ বিপদ

হাত-পা কিংবা অন্য কোথাও সামান্য কেটে গেলে আমরা অনেকেই ব্যান্ডেজ ব্যবহার করি। যাতে বেশি ক্ষতি না হয়। কিন্তু অনেকেই জানেন না, ব্যান্ডেজের আঠালো পদার্থটি বিষাক্ত বা অ্যালার্জিক। এটি আপনার ত্বকের ক্ষতি করে।

ব্যান্ডেজের আঠালো পদার্থটি বিষাক্ত বা অ্যালার্জিক কিনা তা রোগী নিজেই পরীক্ষা করে নিতে পারেন।

যদি দেখেন বার বার ব্যান্ডেজ লাগানোর পর অ্যালার্জি হচ্ছে তাহলে সরাসরি ত্বক বিশেষজ্ঞের কাছে যাওয়া উচিত। ব্যান্ডেজ আটকানোর পর হয়তো প্রাথমিকভাবে অ্যালার্জি সেরে গেছে বলে মনে হলেও পরে তা মারাত্মক আকার নিতে পারে। ভবিষ্যতে হতে পারে কোনো ভয়াবহ চর্মরোগও।

চলুন জেনে নেয়া যাক ব্যান্ডেজে অ্যালার্জি হলে আমাদের করণীয়-

>> অ্যালার্জির জায়গাটি গরমে না রাখার উপদেশ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।

>> অ্যালার্জির জায়গায় এলোভেরা জেল লাগাতে পারেন বলে পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

>> শুকনো চামড়ায় যাতে চুলকানি না হয়, তার জন্য চামড়াকে ময়েশ্চারাইজ করে রাখা পরামর্শ বিশেষজ্ঞদের।

>> জায়গাটি খুব বেশি হাত দিতে বা চুলকালে অ্যালার্জির সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে বলে মতামত বিশেষজ্ঞদের।

>> বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই ব্যান্ডেজ খোলার পর বাতাসের সংস্পর্শে আসার পরই অ্যালার্জি ঠিক হয়ে যায়। চুলকানি কমানোর ক্রিম বা লোশন মাখলেও অ্যালার্জি কমে।

>> একেক জনের ত্বকের বৈশিষ্ট্য একেক রকমের হয়, অনেকেরই অ্যালার্জি হওয়ার প্রবণতাও থাকে। তাই ত্বক বিশেষজ্ঞ রোগীর রক্ত, ত্বকের কোষ ইত্যাদি সহ বিভিন্ন রকম পরীক্ষা করানোর পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*